BCS Bangla Lecture – 13

বিপরীত শব্দ

একটি শব্দ যে অর্থ প্রকাশ করে অন্য একটি শব্দ তার বিপরীত অর্থ প্রকাশ করলে শব্দদুটো পরস্পর বিপরীত অর্থবোধক (Antonym) শব্দ। যেমন: “তুমি অধম বলিয়া আমি উত্তম হইব না কেন?” এ বাক্যে অধম উত্তমের বিপরীত শব্দ। ভাষার প্রকাশ ক্ষমতা বাড়াতে ও শব্দভান্ডার সমৃদ্ধ করতে বিপরীত শব্দের প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য।

নিচে গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় বিপরীত শব্দের উদাহরণ দেওয়া হলো।


অনুগ্রহ – নিগ্রহ
অহ্ন – রাত্রি
অখেদ – খেদ
অফুরান – মুষ্টিমেয়
অনুলোম – প্রতিলোম
অগ্রিম – বকেয়া
অনশন – অশন
অমর – মর
অণু – বৃহৎ
অন্ধ – চক্ষুষ্মান
অনাবিল – আবিল
অর্থী – প্রত্যর্থী
অস্তি – নাস্তি
অধিত্যকা – উপত্যকা
অপ্রতিভ – সপ্রতিভ
অবনত – উন্নত
অহিংস – সহিংস
অগোচর – চাক্ষুষ
অভিমানী – নিরভিমান
অপব্যয় – সদ্ব্যয়
অতিবৃষ্টি – অনাবৃষ্টি
অজ্ঞ – বিজ্ঞ
অজ্ঞাত – বিদিত
অভাব – সম্পদ
অন্দর – সদর
অধমর্ণ – উত্তমর্ণ
অচল – সচল
অনুকূল – প্রতিকূল
অন্তর – বাহির
অন্তরঙ্গ – বহিরঙ্গ
অর্থ – অনর্থ
অম্ল – মধুর
অনন্ত – সান্ত


আগম – নির্গম
আহ্লাদ – খেদ
আপ্যায়ন – প্রত্যাখ্যান
আলসে – খাটিয়ে
আসামি – ফরিয়াদি
আটক – ছাড়
আবির্ভূত – তিরোহিত
আনকোরা – পুরোনো
আঁটসাঁট – ঢলঢলে
আদিষ্ট – নিষিদ্ধ
আবাহন – বিসর্জন
আগ্রহ – উপেক্ষা
আবদ্ধ – মুক্ত
আকস্মিক – চিরন্তন
আঁটি – শাঁস
আকর্ষণ – বিকর্ষণ
আদ্র – শুষ্ক
আমির – ফকির


ই/ঈ

ইতর – ভদ্র
ইষ্ট – অনিষ্ট
ইস্তফা – যোগদান
ইন্দ্রিয় – অতীন্দ্রিয়
ইদানীং – তদানীং
ইহা – উহা
ঈদৃশ – তাদৃশ
ঈশ্বর – নিরীশ্বর
ঈষাণ – নৈর্ঋত
ঈর্ষা – প্রীতি


উ/ঊ/ঋ

উদ্ভাসিত – ম্রিয়মান
উচাটন – প্রশান্ত
উন্মীলন – নির্মীলন
উগমর – মনমরা
উদ্ধৃত্ত – ঘাটতি
উন্মুখ – বিমুখ
উত্তরণ – অবতরণ
উত্তরীয় – অন্তরীয়
উজাড় – ভরপুর
উদ্ধার – হরণ
উঠন্ত – পড়ন্ত
উতরানো – তলানো
উপরোধ – অনুরোধ
উত্তল – অবতল
উদ্যতি – বিরতি
উৎকণ্ঠা – স্বস্তি
উৎকর্ষ – অপকর্ষ
উৎকৃষ্ট – অপকৃষ্ট
উজাড় – ভরপুর
উৎসাহ – নিরুৎসাহ
উদার – সংকীর্ণ
উত্থান – পতন
ঊর্ধ্ব – অধ


এ/ঐ

এঁড়ে – বকনা
এখন – তখন
একান্ন – পৃথগন্ন
এলোমেলো – গোছানো
ঐহিক – পারত্রিক
ঐশ্বর্য – দারিদ্র্য


ও/ঔ

ঔদার্য – কার্পণ্য
ঔজ্জ্বল্য – ম্লানিমা


ক/খ

কলুষ – পুণ্য
কঞ্জুস – দরাজদিল
কিংকর – প্রভু
ক্লেশ – আরাম
কটু – মিষ্ট
কুৎসা – প্রশংসা
কৃপণ – বদান্য
কৌতূহলী – নিস্পৃহ
কর্মকর্তা – কর্মচারী
কুলীন – অন্ত্যজ
ক্রোধ – প্রীতি
কুঞ্জন – সরলতা
কুঞ্চন – প্রসারণ
ক্ষিপ্র – মন্থর
ক্ষীয়মাণ – বর্ধমান
ক্ষীণ – পুষ্ট
খল – সরল
খিড়কি – সিংহদ্বার
খাতক – মহাজন
খুচরা – পাইকারি
খানিক – বেশ


গ/ঘ

গৌরব – লাঘব
গলগ্রহ – প্রতিপাল্য
গত – অনাগত
গরীয়ান – লঘীয়ান
গূঢ় – ব্যক্ত
গৌণ – মুখ্য
গোপন – প্রকাশ
গোপনীয় – প্রকাশ্য
গতি – স্থিতি
গোরা – কালা
গরিষ্ঠ – লঘিষ্ঠ
ঘর – বার
ঘাতক – পালাতক
ঘাত – প্রতিঘাত
ঘাটতি – বাড়তি
ঘৃণিত – সমাদৃত


চ/ছ

চুনোপুটি – রুই-কাতলা
চড়াই – উৎরাই
চিরায়ত – সাময়িক
চূর্ণ – অখণ্ড
ছানা – ধড়ি
ছলনা – সততা
ছায়া – কায়া


জ/ঝ

জরিমানা – বখশিশ
জিন্দাবাদ – মুর্দাবাদ
জ্বলন – নির্বাণ
জ্যেষ্ঠ – কনিষ্ঠ
জড় – চেতন
জরা – যৌবন
জনাকীর্ণ – জনবিরল
জলচর – স্থলচর
ঝলমলে – মিটমিটে
ঝুনা – কাঁচা
ঝগড়া – ভাব


ট/ঠ

টানা – পোড়েন
টিমটিমে – জ্বলজ্বলে
টিলা – খন্দ
ঠিকা – স্থায়ী
ঠগ – সাধু
ঠুনকো – মজবুত


ড/ঢ

ডাগর – ছোট
ডগমগ – মনমরা
ডানপিটে – শান্ত
ডোবা – ভাসা
ডাঙা – জল
ঢোসা – হালকা


ত/থ

ত্বরিত – শ্লথ
তন্ময় – মন্ময়
তুষ্ট – রুষ্ট
ত্যাগ – ভোগ
তোলা – নামানো
তামসিক – রাজসিক
তদ্রুপ – যদ্রুপ
তুহিন – উষ্ণতা
তেলতেলে – খসখসে
তন্দ্রা – জাগরণ
ত্রাস – সাহস
তীব্র – মৃদু
ত্যাজ্য – গ্রাহ্য
তেজি – মন্দা
ত্বরান্বিত – বিলম্বিত
থোকা থোকা – একটা একটা
থেঁতো – আস্ত
থাকা – চাওয়া


দ/ধ

দর্শক – প্রদর্শক
দস্যু – ঋষি
দারক – দুহিতা
দরদি – নির্মম
দিগ্গজ – মহামূর্খ
দাবি – ছাড়
দুর্বার – নির্বার
দুর্লভ – সুলভ
দৃঢ় – শিথিল
দুষ্কৃত – সুকৃত
দেব – দৈত্য
দৈব – দুর্দৈব
দুর্বিষহ – সুসহ
দেবর – ভাসুর
দোস্ত – দুশমন
দরাজ – সংকীর্ণ
দেহী – বিদেহী
দাতা – গ্রহীতা
ধৃত – মুক্ত
ধুপ – ছায়া
ধেড়ে – কচি


নিরাকার – সাকার
নির্বাণ – অনির্বাণ
নির্মল – পঙ্কিল
নূতন – পুরাতন
নতুন – পুরোনো
নন্দিত – নিন্দিত
নিত্য – নৈমিত্তিক
নৈঃশব্দ – সশব্দ
নশ্বর – অবিনশ্বর
নালায়েক – লায়েক


প/ফ

প্রকৃতি – বিকৃতি
পালক – পালিত
প্রছন্ন – ব্যক্ত
প্রসন্ন – বিষণ্ন
প্রমুক্ত – বন্দি
প্রতিযোগী – সহযোগী
পদস্থ – নিম্নস্থ
প্রশ্বাস – নিশ্বাস
পূজক – পূজ্য
প্রসাদ – রোষ
পাংশু – সতেজ
প্রখর – স্নিগ্ধ
প্রাংশু – বামন
প্রবৃত্তি – নিবৃত্তি
প্রবণতা – ঔদাসীন্য
প্রাচীন – অর্বাচীন
পরকীয় – স্বকীয়
ফতে – পরাজয়
ফাজিল – চুপচাপ
ফাঁপা – নিরেট


ব/ভ

বিশ্লেষণ – সংশ্লেষণ
বাউণ্ডুলে – সংসারী
বিজয় – পরাজয়
বিতর্কিত – তর্কাতীত
বিকল – সচল
বিন্দু – রাশি
ব্যষ্টি – সমষ্টি
বিলাপ – হাস্য
বিশেষ – সামান্য
বিনীত – উদ্ধত
বিনয় – ঔদ্বত্য
বিকি – কিনি
বাদী – বিবাদী
বিশ্রী – সুশ্রী
বিদ্যমান – অন্তর্হিত
বিপন্ন – নিরাপদ
বিবাদ – বন্ধুতা
বহুল – বিরল
বাহুল্য – সংক্ষেপ
বর্ধিষ্ণু – ক্ষয়িষ্ণু
বাহ্য – অভ্যন্তর
ভগ্ন – পূর্ণ
ভ্রম – জ্ঞান
ভক্ত – বিরাগী
ভাটি – উজান


মিলন – বিরহ
মূর্ত – বিমূর্ত
মরমি – নিষ্ঠুর
মনীষা – নির্বোধ
মহার্ঘ – সুলভ
মুখরতা – মৌনতা
মুখর – মৌন
মেঘলা – ফর্সা
মত্ত – নির্লিপ্ত
মতৈক্য – মতানৈক্য
মাগনা – কষ্টার্জিত


য/র/ল

যতি – সংযমী
যমী – অসংযমী
যজমান – পুরোহিত
যৌথ – একক
যোজক – প্রণালি
রম্য – কুৎসিত
রজত – স্বর্ণ
রদ – চালু
রিক্ত – পূর্ণ
রমণীয় – কুৎসিত
লঘু – গুরু
লগ্ন – চ্যুত
লেজা – মুড়া
লেখক – পাঠক
লেনা – দেনা
লব – হর
লাজুক – নির্লজ্জ
লিপ্ত – নির্লিপ্ত


শ/ষ

শিব – অশিব
শাসক – শাসিত
শোষণ – পরিপালন
শবল – একবর্ণা
শিখর – নিম্নদেশ
শয়তান – ফেরেশতা
শড়া – টাটকা
শাক্ত – বৈষ্ণব
শর্বরী – দিবস
শুক্লপক্ষ – কৃষ্ণপক্ষ
শূন্য – পূর্ণ
শ্যামল – গৌরাঙ্গ
শাসন – সোহাগ
শিথিল – সুদৃঢ়
শহিদ – গাজি
ষণ্ডা – দূর্বল


স/হ

সংশ্লিষ্ট – বিশ্লিষ্ট
স্ববাস – প্রবাস
সংশয় – নিশ্চয়
সিধা – উল্টা
সদর্থক – নঞর্থক
স্তুতি – নিন্দা
স্বতন্ত্র – পরতন্ত্র
সমবেত – ছত্রভঙ্গ
সন্ধি – বিগ্রহ
স্থানু – চলিষ্ণু
স্থাবর – জঙ্গম
সুষুপ্ত – জাগরিত
সফেদ – লোহিত
সৌখিন – পেশাদার
সুষম – অসম
সংযুক্ত – বিযুক্ত
সমক্ষ – পরোক্ষ
সচেষ্ট – নিশ্চেষ্ট
হরণ – পূরণ
সুশীল – দুঃশীল
সৌরমাস – চন্দ্রমাস
স্মৃতি – বিস্মৃতি
সদাকার – কদাকার
হত – জীবিত
হতবুদ্ধি – স্থিতবুদ্ধি


নমুনা প্রশ্ন

১. অনুগ্রহ শব্দের বিপরীত শব্দ –

ক) বিগ্রহ

খ) নিগ্রহ

গ) কৃপা

ঘ) বিরক্ত

উত্তরঃ খ

২. ‘কালেভদ্রে’ শব্দের বিপরীত শব্দ – 

ক) সামান্য

খ) ক্বদাচিৎ

গ) অনবরত

ঘ) মাঝে মাঝে

উত্তরঃ গ

৩. ‘যাযাবর’ শব্দের বিপরীত শব্দ – 

ক) সংযমী

খ) গৃহী

গ) সন্ন্যাসী

ঘ) সংসারী

উত্তরঃ খ

৪. কোনটি অশুদ্ধ?

ক) স্থাবর : জঙ্গম

খ) ভূত : ভবিষ্যত

গ) শবল : একবর্ণা

ঘ) সন্ধি : বিযুক্ত

উত্তরঃ ঘ

৫. কোনটি শুদ্ধ?

ক) বিশেষ : অশেষ

খ) শাসন : সোহাগ

গ) হলাহল : জীবিত

ঘ) ফাজিল : নিরাপদ

উত্তরঃ খ

৬. কোনটি ঠিক নয়?

ক) প্রকৃতি : বিকৃতি

খ) প্রচ্ছন্ন : ব্যক্ত

গ) দরাজ : দুশমন

ঘ) দস্যু : ঋষি

উত্তরঃ গ

৭. ‘ঝাটতি’ এর বিপরীত শব্দ – 

ক) তাড়াতাড়ি

খ) নিন্দা

গ) বিলম্ব

ঘ) অতৃপ্তি

উত্তরঃ গ

৮. ‘সংশয়’ শব্দের বিপরীত শব্দ – 

ক) বিস্ময়

খ) নিশ্চয়

গ) নির্ভয়

ঘ) সোহাগ

উত্তরঃ খ

৯. ‘আঁটি’ এর বিপরীত শব্দ – 

ক) আঁশ

খ) চামড়া

গ) ফল

ঘ) শাঁস

উত্তরঃ ঘ

১০. ‘আকিঞ্চন’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) পশ্চাৎ

খ) প্রতিকূল

গ) প্রসারণ

ঘ) গোছানো

উত্তরঃ গ

১১. ‘আবির্ভাব’ এর বিপরীত শব্দ কী? 

ক) বিসর্জন

খ) তিরোভাব

গ) তিরোহিত

ঘ) পুরোভাব

উত্তরঃ খ

১২. ‘গুপ্ত’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) প্রকাশ্য

খ) ব্যাপ্ত

গ) মুখ্য

ঘ) লাঘব

উত্তরঃ ক

১৩. ‘অপকার’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) কার

খ) অনাকার

গ) অধিকার

ঘ) উপকার

উত্তরঃ ঘ

১৪. ‘কৃত্রিম’ এর বিপরীত শব্দ –

ক) অস্বাভাবিক

খ) স্বাভাবিক

গ) প্রকৃত

ঘ) হাস্যকর

উত্তরঃ খ

১৫. ‘গৌরব’ এর বিপরীত শব্দ হলো – 

ক) বর্জন

খ) ত্যাগ

গ) লাঘব

ঘ) পতন

উত্তরঃ গ

১৬. ‘অনন্ত’ এর বিপরীত শব্দ হবে –

ক) অন্ত্য

খ) নন্ত

গ) সান্ত

ঘ) শান্ত

উত্তরঃ গ

১৭. ‘শাঁস’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) ঘাস

খ) আঁশ

গ) আঁটি

ঘ) মৃত্যু

উত্তরঃ গ

১৮. ‘শ্যামল’ শব্দটির বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) সবুজ

খ) কাল

গ) রঙ্গিন

ঘ) গৌরাঙ্গ

উত্তরঃ ঘ

১৯. ‘পরকীয়’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) স্বকীয়

খ) বিরহ

গ) মিলন

ঘ) স্বতন্ত্র

উত্তরঃ ক

২০. ‘উত্তমর্ণ’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) আমর্ণ

খ) নিম্নমর্ণ

গ) অধমর্ণ

ঘ) উদ্ধত

উত্তরঃ গ

২১. ‘উর্বর’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) ঊষর

খ) অনুর্বর

গ) ক+খ

ঘ) উষর

উত্তরঃ গ

২২. ‘ক্ষীয়মান’ শব্দটির বিপরীত শব্দ কোনটি?

ক) ক্রমমান

খ) বর্ধমান

গ) ধাবমান

ঘ) লঘুমান

উত্তরঃ খ

২৩. কোনটি ‘জঙ্গম’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ?

ক) অস্থাবর

খ) স্থাবর

গ) মঙ্গল

ঘ) ঘুমন্ত

উত্তরঃ খ

২৪. ‘নিদ্রিত’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) অনিদ্রিত

খ) জাগ্রত

গ) সুপ্ত

ঘ) ঘুমন্ত

উত্তরঃ খ

২৫. ‘আবাহন’ শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ কোনটি?

ক) পশ্চাৎ

খ) প্রতিকূল

গ) প্রসারণ

ঘ) বিসর্জন

উত্তরঃ ঘ

২৬. ‘ঈদৃশ’ এর বিপরীত শব্দ-

ক) উদৃশ

খ) সিদৃশ

গ) বিদৃশ

ঘ) তাদৃশ

উত্তরঃ ঘ

২৭. ‘জরা’ এর বিপরীত শব্দ কোনটি?

ক) চেতন

খ) বুড়া

গ) যৌবন

ঘ) ভোঁতা

উত্তরঃ গ

২৮. ‘প্রতিযোগী’ শব্দটির বিপরীত শব্দ কী?

ক) অনুযোগী

খ) অপযোগী

গ) সহযোগী

ঘ) উপযোগী

উত্তরঃ গ

২৯. ‘অনুরক্ত’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) রক্ত

খ) বিরক্ত

গ) প্রতিরক্ত

ঘ) অপরক্ত

উত্তরঃ খ

৩০. ‘ঔদার্য’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) বিনয়

খ) কার্পণ্য

গ) বিনীত

ঘ) ঔদ্ধত্য

উত্তরঃ খ

৩১. ‘গোপন’ এর বিপরীত শব্দ হলো – 

ক) বর্জন

খ) প্রকাশ্য

গ) লাঘব

ঘ) প্রকাশ

উত্তরঃ ঘ

৩২. ‘কৃত্রিম’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) অস্বাভাবিক

খ) স্বাভাবিক

গ) অকৃত্রিম

ঘ) খ + গ

উত্তরঃ ঘ

৩৩. ‘ঐহিক’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) বাহ্যিক

খ) অভ্যন্তরীণ

গ) পারত্রিক

ঘ) গোত্রিক

উত্তরঃ গ

৩৪. ‘ঠুনকো’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) ঢিলা

খ) মজবুত

গ) মুখ্য

ঘ) লাঘব

উত্তরঃ খ

৩৫. ‘প্রাচীন’ এর বিপরীত শব্দ কী?

ক) অর্বাচীন

খ) তিরোভাব

গ) অচিন

ঘ) আধুনিক

উত্তরঃ ক

তথ্যসূত্র:

১. রফিকুল ইসলাম, পবিত্র সরকার ও মাহবুবুল হক, প্রমিত বাংলা ব্যবহারিক ব্যাকরণ (বাংলা একাডেমি, জানুয়ারি ২০১৪)
২. রফিকুল ইসলাম ও পবিত্র সরকার, প্রমিত বাংলা ভাষার ব্যাকরণ, প্রথম খণ্ড (বাংলা একাডেমি, ডিসেম্বর ২০১১)
৩. মুনীর চৌধুরী ও মোফাজ্জল হায়দার চৌধুরী, বাংলা ভাষার ব্যাকরণ (ফেব্রুয়ারি ১৯৮৩)
৪. নির্মল দাশ, বাংলা ভাষার ব্যাকরণ ও তার ক্রমবিকাশ (বিশ্বভারতী ২০০০)
৫. কাজী দীন মুহম্মদ ও সুকুমার সেন, অভিনব ব্যাকরণ (ঢাকা ১৯৪৮)
৬. মুহম্মদ আবদুল হাই, ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত¡ (১৯৬৪)
৭. ড. হায়াৎ মামুদ, ভাষাশিক্ষা : বাংলা ভাষার ব্যাকরণ ও নির্মিতি (২০০৪)
৮. ড. মো. মুস্তাফিজুর রহমান, ভাষাবিধি : বাংলা ভাষার ব্যাকরণ ও প্রবন্ধ রচনা (আদিল ব্রাদার্স, জানুয়ারি ২০০৯)
৯. ড. সৌমিত্র শেখর, বাংলা ভাষা ও সাহিত্য জিজ্ঞাসা (অগ্নি পাবলিকেশন্স, এপ্রিল ২০০৪)
১০. ড. মুহম্মদ এনামুল হক ও শিবপ্রসন্ন লাহিড়ী, ব্যবহারিক বাংলা অভিধান (বাংলা একাডেমি, স্বরবর্ণ অংশ: ডিসেম্বর ১৯৭৪ ও ব্যঞ্জনবর্ণ অংশ: জুন ১৯৮৪)
১১. স্বরোচিষ সরকার, বাংলাদেশের কোষগ্রন্থ ও শব্দসন্ধান (বাংলা একাডেমি, মে ২০১০)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *